পুরুষদের চুল পড়ার কারণ এবং চুল পড়া বন্ধ করার উপায়।

পুরুষের অতিরিক্ত চুল পড়া বন্ধ করার উপায়- আমাদের চুল আমাদের সৌন্দর্য বাড়ানোর ক্ষেত্রে কাজ করে। ভালো এবং ঘন চুল একজন ব্যক্তিকে আকর্ষণীয় এবং খুব সুন্দর করে তোলে।

তাই আমাদের চুলের কোনো সমস্যা থাকলে আমরা খুব মন খারাপ করে থাকি। অতিরিক্ত চুল পড়া খুবই বেদনাদায়ক। এই ধরণের সমস্যায় কেবল মহিলারা নয় পুরুষরাও খুব বিরক্ত হন।

চিকিৎসকদের মতে দিনে ৫০ থেকে ১০০ টি চুল পড়ে যাওয়া স্বাভাবিক, তবে এর চেয়ে বেশি পড়ে যাওয়া ঠিক নয়। চুল পড়ার অভিযোগকারীদের মধ্যে পুরুষরা সবচেয়ে বেশি।

পুরুষদের চুল পড়ার কারণ এবং চুল পড়া বন্ধ করার উপায়।

চুল পড়া পুরুষদের অবহেলার একটি কারণ। আজ আমরা পুরুষদের চুল নষ্ট হওয়ার পেছনের কারণ এবং প্রতিরোধের পদ্ধতিগুলি সম্পর্কে আলোচনা করবো।

পুরুষদের চুল পড়ার কারণ।

০১. বেশি মানসিক চাপের মধ্যে থাকা:

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, যারা বেশি মানসিক চাপের মধ্যে থাকেন তারা বিভিন্ন ধরণের অসুস্থতায় ভুগতে পারেন। অতিরিক্ত চাপের কারণে অনেক সময় চুল পড়ার সমস্যা হতে পারে।

০২. হরমোনের পরিবর্তন:

হরমোনের পরিবর্তনের কারণে চুল পড়ার সমস্যা হতে পারে। অতিরিক্ত বা ঘাটতিযুক্ত টেস্টোস্টেরনের কারণে চুলের ক্ষতি হয়।

০৩. অতিরিক্ত ধূমপান বা মদ্যপান করা:

যারা বেশি ধূমপান বা অ্যালকোহল গ্রহণ করে তারা বেশি চুল পড়ার সমস্যায় ভোগে।

০৪. জেনেটিক সমস্যা:

বেশিরভাগ মানুষের চুল পড়ার মূল কারণ জেনেটিক হয়। যদি আপনার দাদা ও বাবার চুল পড়ার সমস্যা থাকে তাহলে আপনারও চুল পড়ার সমস্যা দেখা দিবে। জেনেটিকের কারণে অনেকেই এই সমস্যার মুখোমুখি হয়।

০৫. গুরুতর অসুস্থ হওয়ার কারণে:

কখনো কখনো গুরুতর অসুস্থ হওয়ার কারণে মাথার অনেক চুল পড়ে যায়।

পুরুষের চুল পড়া বন্ধ করার উপায়।

০১. মানসিক চাপ কমিয়ে ফেলা:

তুচ্ছ বিষয়েও বিরক্ত হওয়া বা মানসিক চাপের মধ্যে থাকা চুল পড়াও একটি বড় কারণ। তাই যতোটা সম্ভব মানসিক চাপ কমান। এতে আপনার চুল পড়া কিছুটা হলেও কমে আসবে।

০২. চুলের স্টাইলিং সরঞ্জাম ব্যবহার বন্ধ করুন: 

আজকের সময়ে লোকেরা চুলের স্টাইলিং সরঞ্জাম বেশি ব্যবহার করে। যার কারণে চুল দেখতে হয়তো ভাল লাগতে পারে তবে পরবর্তীতে এটি চুল নষ্ট হওয়া বা পড়া শুরু করে।

আসলে, এই সরঞ্জামগুলির অতিরিক্ত ব্যবহার চুলকে শুকনো এবং চুলের শিকড় দুর্বল করে দেয়। যে সমস্ত লোকেরা প্রতিদিন এই সরঞ্জামগুলি ব্যবহার করেন, তাদের চুল দুর্বল এবং পাতলা হতে পারে।  তাই চুলের স্টাইলিংয়ের জন্য এসব অতিমাত্রায় ব্যবহার বন্ধ করুন।

০৩. চুলে রাসায়নিক সমৃদ্ধ পণ্য ব্যবহার থেকে দূরে থাকুন:

প্যারাফিন, অ্যালকোহল বা অন্যান্য ধরণের রাসায়নিক রয়েছে এমন পণ্য ব্যবহার করবেন না।  আপনার চুল যত দীর্ঘ হবে তত বেশি পুষ্টি দরকার।  সুতরাং, সর্বোচ্চ পুষ্টি দিন এবং রাসায়নিক সমৃদ্ধ পণ্যগুলি থেকে তাদের দূরে রাখুন।

০৪. ধূমপান ও মদ্যপান বন্ধ করুন:

ধূমপান ও মদ্যপান করলে চুল পড়ার সমস্যা বাড়ে। এর বাইরে আপনার স্বাস্থ্যেরও ক্ষতি হতে পারে।  সুতরাং ধূমপান ও মদ্যপান পুরোপুরি ছেড়ে দেওয়া জরুরী। এ ছাড়া চুলের বৃদ্ধিও বন্ধ হয়ে যায়। ধূমপান না করে চুল পড়া রোধ করা যায়।

০৫. স্বাস্থ্যকর ডায়েট করুন:

চুল পড়া রোধ করতে আপনার ডায়েটও পরিবর্তন করতে হবে। স্বাস্থ্যকর ডায়েট কেবল আপনার শরীরকেই উপকারী করেনা, আপনার চুলও ভালো করতে পারে।

প্রতিদিন ব্যায়াম করার সাথে সাথে আপনার খাদ্যতালিকায় মাছ, মাংস, সবুজ-শাকসবজি এবং বাদাম অন্তর্ভুক্ত করুন। এসব খাওয়া আপনার চুলকে খুব ভাল করে তুলবে।

Post a Comment

0 Comments