ওয়েবসাইটে খুব সহজে এডসেন্স পাবেন যেভাবে।

গুগল এডসেন্স | Earn money with website monetization from Google AdSense | গুগল এডসেন্স সহজে পাবেন যেভাবে।

প্রিয় পাঠক, আমরা এই পর্যায়ে আজ আলোচনা করবো কিভাবে আপনার ওয়েবসাইটকে গুগল এডসেন্স (Google AdSense) দ্বারা মনিটাইজ করে ভালো একটা ইনকাম করতে পারেন (Earn Money From Website Monetization)।

গুগল এডসেন্স থেকে টাকা আয় করতে চাইলে পুরো পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। তো চলুন প্রথমতো জেনে নিন আপনার ওয়েব সাইটকে মনিটাইজ করার প্রাথমিক ধারণা:

গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায় গুগল এডসেন্স এর নিয়ম, গুগল এডসেন্স থেকে আয় করার উপায়, google adsense থেকে ইনকাম, গুগল এডসেন্স এর একাউন্ট কিভাবে খুলতে হয়, গুগল এডসেন্স সম্পর্কে জানুন, কিভাবে গুগল এডসেন্স এর জন্য আবেদন করবেন, গুগল এডসেন্স টাকা, গুগল এডসেন্স থেকে টাকা আয়, গুগল এডসেন্স বাংলা টিউটোরিয়াল,
ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায়।


ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স পাওয়ার সহজ কিছু উপায়।

০১. Google AdSense পেতে হলে প্রথম আপনাকে Google AdSense কর্তৃক প্রদত্ত বিভিন্ন প্রকার রুলস জেনে কাজ করতে হবে।

০২. আপনার ওয়েবসাইট হোক সেটা ব্লগারে কিংবা ওয়ার্ডপ্রেসে, একজন ভিজিটর যাতে ওয়েব সাইট সম্বন্ধে ভালো ধারণা রাখে এবং তা থেকে ঐ ভিজিটর সম্পূর্ণ নিরাপত্তা পাওয়ার পরও দরকারি সব কাজের তথ্য পেয়ে সন্তুষ্টি লাভ করে।

ঠিক আপনাকে তার জন্য নানান তথ্য সমৃদ্ধ উৎসে ওয়েব সাইটকে ইউনিক কটেন্ট সমৃদ্ধ করতে হবে। 

০৩. কোনো প্রকার কপি করা আর্টিক্যাল ব্যবহার করতে পারবেন না। এমনকি কোথাও থেকে ডাউনলোড করা অর্থাৎ কোনো ইমেজ যা অন্য কোথাও প্রকাশিত হয়েছে তা ব্যবহার করতে পারবেন না।

যদি আপনার নিজস্ব সংগ্রহে থাকে, আপনি যদি এডিটিং করে কাটছাট করেন সেটা ভিন্ন কথা।

০৪. ওয়েব সাইটে ফ্রী ডোমেন-হোস্টিং অর্থ্যাৎ ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে ব্যবহার করতে পারবেন না, এজন্য আপনাকে সম্পূর্ণ পেইড ভার্সন ব্যবহার করতে হবে। আর ব্লগের ক্ষেত্রে তা ভিন্ন ব্যাপার। 

০৫. টপ লেভেল ডোমেইন নিয়ে আপনাকে কাজ করতে হবে। ফ্রী ডোমেইনে এডসেন্স পাওয়ার নিশ্চয়তা কম।

০৬. সাইটের ম্যানুভার থাকতে হবে। সম্পূর্ণ ক্যাটাগরি ইউনিক কনটেন্ট দ্বারা পরিপূর্ণ থাকতে হবে।

০৭. আপনার ওয়েব সাইটে গুরুত্বপূর্ন পেজগুলো থাকতে হবে। তা হলো: (Contact Us, Disclaimer, Privacy Policy, Terms and Conditions, About Us)।

তবে About Us, Contact Us, Privacy Policy এই তিনটি পেজ বেশি জরুরি। এগুলো অবশ্যই এড করে নিতে হবে।

০৮. পেজের সোশ্যালবার গুলোতে অবশ্যই আপনার প্রতিষ্ঠানের লিংকগুলো এড করে নিতে ভুলবেন না।

০৯. অনেকেই আজ ওয়েব সাইট তৈরি করে কালই এডসেন্স পেতে মরিয়া হয়ে এপ্লাই করে ফেলেন, দয়া করে ধৈর্য ধরুন, মাত্র তিন মাসের মতো।

যখন দেখবেন আপনার ওয়েব সাইটে ট্রাফিক আসা শুরু করছে, এরপর ধীরে সুস্থে মনিটাইজের দিকে এগোতে পারেন। হুটহাট কোনো কাজই ভালো ফল বয়ে আনে না।

১০. সাইটটিকে ভালো মতো সাজান, সঠিক পদ্ধতিতে SEO করেন, অতিরঙ্গায়িত করবেন না, এমন কোনো কিছু ব্যবহার করবেন যাতে সাইটি স্লো না হয়ে যায়।

আবার এমন ধরনের কনটেন্ট লিখবেন না যা অশ্লীল, যা সম্পর্কে ভিজিটর বাজে ধারণা পোষণ করেন তা থেকে বিরত থাকতে হবে। এর যদি কোনোটা করে থাকেন তাহলে তা সরিয়ে ফেলুন।

১১. অন্য কোনো থার্ডপার্টি নেটওয়ার্কের এডস বা বিজ্ঞাপন ব্যবহার করতে পারবেন না, অবশ্যই তা এপ্লাই করার আগ মুহূর্তকাল পর্যন্ত।

১২. অবশেষে, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে, আপনি আপনার সাইট শতভাগ মনিটাইজ পেতে পারেন। ওয়েব সাইট এপ্লাই করে রেখে দিলে চলবে না, সাইটে নিয়মিত পোস্ট দেওয়ার কাজ চালিয়ে যান।

এরপূর্বে গুগল সার্চ কনসোলে সাইটটি এড করুন। সবকিছু সুন্দর ও সাবলীলভাবে করতে থাকুন। যদি আপনার কাজ নিয়মানুযায়ী হয়ে থাকে, অবশ্যই এডসেন্স পাবেন।

(মোহাম্মদ আজিজুর রহমান)

Post a Comment

0 Comments