মাত্র ৩০ পয়সা প্রতি মিনিটে কথা বলুন দেশের যেকোনো নাম্বারে।

এন্ড্রয়েড ফ্রি কলিং অ্যাপস ২০২১- আমরা সাধারণ উপায়ে যে মাধ্যমে ফোনে কথা বলি তার কল রেট চার্জ থাকে অনেক বেশি। আবার তার সাথে যুক্ত হয় সরকার থেকে আরোপ করা বড় অংকের ভ্যাট।

তবে আজকে আমি আপনাদেরকে একটি নতুন আইপি কলিং মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিব। যা দিয়ে আপনি দেশের যেকোনো মোবাইল বা ল্যান্ড নাম্বারে মাত্র ৩০ পয়সা মিনিটে কথা বলতে পারবেন।

আর এর সাথে যদি ভ্যাট যুক্ত করি তাহলে কল রেট দারাবে মাত্র ৩৪.৫ পয়সা প্রতি মিনিট। তবে অ্যাপ থেকে অ্যাপে অডিও এবং ভিডিও কলে কথা বলা যাবে একদম বিনামূল্যে। (ইমু ও হোয়াটসঅ্যাপে যেভাবে কথা বলি।)

আলাপ কি? কিভাবে আলাপ ডাউনলোড করবো? কিভাবে আলাপ একাউন্ট খুলবো? কিভাবে আলাপ এ রিচার্জ করবো? কিভাবে আলাপ একাউন্ট ভেরিফাই করবো?
মোবাইল ফ্রি কলিং অ্যাপ ২০২১

অ্যাপটির নাম 'আলাপ'। এটা একটি  সরকারি আইপি কলিং অ্যাপ। অ্যাপটি চালু করেছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ কোম্পানি লিমিটেড (BTCL)। অ্যাপটি ব্যবহার করতে ইন্টারনেট সংযোগের প্রয়োজন পরবে।

আর অ্যাপটিতে নিবন্ধন করার সাথে সাথে পেয়ে যাবেন 15 মিনিট ফ্রি টকটাইম। যা দিয়ে দেশের যেকোনো মোবাইল বা ল্যান্ড নাম্বারে কথা বলতে পারবেন।

আলাপ অ্যাপের সুবিধাসমূহঃ

•যেকোনো মোবাইল বা ল্যান্ড নাম্বারে মাত্র ৩৪.৫ পয়সা মিনিটে কথা বলা যাবে।

•আলাপ বাংলাদেশ সরকারের তৈরি একটি মোবাইল অ্যাপ তাই ব্যবহারে ঝুঁকি নেই।

•নতুন একাউন্ট করলেই পাওয়া যাবে ১৫ মিনিট ফ্রি টকটাইম।

•বিকাশ, নগদ কিংবা ব্যাংক কার্ড থেকে খুব সহজেই রিচার্জ করা যায়।

•অ্যাপ থেকে অ্যাপ কথা বলতে কোনো টাকা খরচ করতে হবেনা।

•এক দেশে থেকে অন্য দেশে কথা বলা যাবে।

আলাপ অ্যাপ কিভাবে ডাউনলোড করবেন?

আলাপ কি? কিভাবে আলাপ ডাউনলোড করবো? কিভাবে আলাপ একাউন্ট খুলবো? কিভাবে আলাপ এ রিচার্জ করবো? কিভাবে আলাপ একাউন্ট ভেরিফাই করবো?
আলাপ মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড।

গুগল প্লেস্টোরে গিয়ে 'Alaap' লিখে সার্চ করলেই অ্যাপটি পেয়ে যাবেন। অ্যাপটি রয়েছে 'Alaap - BTCL Calling App' নামে। সেখান থেকে ডাউনলোড করে ইনস্টল করে নিন। অথবা এখানে ক্লিক করে সরাসরি Install করে নিন।

কিভাবে 'আলাপ' অ্যাপে একাউন্ট খুলতে হয়?

ধাপ-০১ঃ অ্যাপটিতে প্রথমবার প্রবেশ করলে কিছু ফিচার দেখানো হবে সেগুলো Continue করে দিন।

ধাপ-০২ঃ আপনার মোবাইল নাম্বারটি দিয়ে ভেরিফাই করে নিন।

ধাপ০৩ঃ NID কার্ড দিয়ে Verification করতে বললে করে নিতে পারেন। অথবা Skip করে দিতে পারেন। কারণ পরবর্তীতেও ভেরিফাই করার অপশন পাবেন।

এই ২-৩ টি ধাপ অতিক্রম করলেই আপনার আলাপ একাউন্ট খুলা হয়ে যাবে।

আশা করি আলাপ অ্যাপটি অনেক অনন্দের সাথে ব্যবহার করতে পারবেন।

Post a Comment

0 Comments