যদি কভু সফলতার স্বাদ পাই- মুহাম্মদ রবিন।

আলহামদুলিল্লাহ, জীবনে কোনো ইচ্ছাই অপূর্ণ নেই। হয়তো চেয়ে পেয়েছি, না হয় চাওয়ার আগেই পেয়েছি। আর দশ জনের চেয়ে চাহিদাটাও ছিল কম।

কোনো ইচ্ছে অপূর্ণ না থাকার এটাও হয়তো একটি কারণ। জীবনের একটা সময় এসে পরিবারের প্রতি অভিযোগ আর রাগ প্রায় সবারই থাকে।

বিশেষ করে, আমাদের দেশের ছেলেদের তাদের বাবার প্রতি অনেক অভিযোগ থাকে।

যদিও সেই অভিযোগ বিলীন হয়ে যায় যখন মায়ের আঁচল আর বাবার ছায়া ছেড়ে পৃথিবীর পানে পা বাড়ানো হয়।

তখন বুঝতে শেখা যায় পৃথিবীর সব মানুষ নিজকে নিয়েই ব্যস্ত, শুধু নিজ পরিবারের আপন মানুষ জন ছাড়া।

জীবন চলার এই পথে কতো মানুষই আসে যায়। কেউ চিরকাল পাশে থাকে না, থাকে শুধু পরিবারের মানুষ জনই।

পরিবারের এতগুলো টাকা পানিতে ভাসিয়ে দিয়ে এতো দূর এসে ঘোড়ার ঘাস কেটে যাচ্ছি চার বছর হয়।

অনেককেই দেখেছি তারা তাদের সন্তানদের নিয়ে গর্ব করতে। কারণ তারা তাদের মা-বাবার মুখ উজ্জ্বল করতে সক্ষম হয়েছে।

আমার সহপাঠীদের মধ্যেও অনেকেই অনেক ভালো অবস্থানে অবস্থান করছে।

আমার পরিবার তো আমাকে হাওয়া খায়িয়ে বড় করেনি! তাহলে আমি কেন পারলাম না? তারা তো সবই দিয়েছে আমাকে, আমি কী দিতে পেরেছি!

মিস্টার বান্দরের তিন সস্তা কামলার এক কামলা আমি।

আমার এই সস্তা অবস্থানটা প্রতিনিয়ত টের পাচ্ছি। আমার অবস্থানটাই প্রমাণ করে কতোটা অপদার্থ আমি।

অন্যের ভালো অবস্থান দেখে কখনো ঈর্ষান্বিত হই না। তবে, মাঝে মাঝে কষ্ট লাগে।

আসলে পৃথিবীর কোনো কিছুই এমনি এমনি আসেনা তা নিজ যোগ্যতা দিয়ে অর্জন করে নিতে হয়। নিজ যোগ্যতাকে কাজে লাগিয়ে বড় হতে প্রয়োজন হয় চেষ্টা আর কঠোর পরিশ্রমের।

আমি আমার অবস্থান পরিবর্তন করার চেষ্টাও তো করিনি কখনো।

তাই নিজেকে ব্যর্থ দাবী করতেও লজ্জা পাই। ব্যার্থতায় গ্লানি যারা বয়ে বেড়ায় তারা কিছুটা হলেও সে ব্যর্থতা থেকে বাস্তব ধর্মী শিক্ষা পায়।

আর আমি তো বাস্তবতা বাদ দিয়ে করিছি সব অসম্ভব কল্পনা।

যে কল্পনার সাথে বাস্তবতার কোনো যোগসাজশ নেই। কল্পনার ঘোড়ায় চড়ে ছোটে চলি আজব ভবিষ্যৎ আর অতীতে। বাস্তবতাকে ভয় করি।

তাই এসব আকাশকুসুম কল্পনায় বাস্তবতার কোনো স্থান দেই না।

কল্পনায় সবাই সব সময় সুখ সাগরে ভাসলেও আমি মাঝে মাঝে হতাশার সাগরে ডুবে যাই। কোনো এক অপ্রকাশিত দূর্বলতা প্রতিনিয়ত গ্রাস করে চলেছে আমাকে।

যার জন্য সামনে এগিয়ে যেতে পারি না আর নিজের অবস্থানটাও পরিবর্তন করার চেষ্টা করতে পারি না। তবে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি যাতে সে এই দূর্বলতাটাকে কাটিয়ে তুলে।

তার কাছে কিছুই অসম্ভব নয়। নিজের সাথে সংকল্প করি, যদি কখনো আল্লাহ আমার সহায় হয় তাহলে নিজেকে নতুন ভাবে গড়ে তুলবো, নিজেকে আরো ভালো অবস্থানে নিয়ে যাবো।

স্বপ্ন দেখি একদিন সফল হবো। পরিবারের মুখে হাসি ফুটাবো।

Post a Comment

Previous Post Next Post

Recent Posts