ছারপোকা তাড়ানোর ১০ টি সহজ উপায় জেনে নিন।

বেশিরভাগ বাড়িতেই ছারপোকা পাওয়া যায়।  ছারপোকা মানুষের রক্ত ​​চুষে খায়। বাড়িতে বেশিরভাগ ঘরের বিছানায় দেখা যায়।

বেডরুমের বিছানা ছাড়াও সোফা এবং আলমারির ভিতরে ছারপোকা পাওয়া যায়। ছারপোকা দিনের বেলা তেমন দেখা যায় না, তবে অন্ধকারে অনেক বেশি বের হয়।

ছারপোকা যেখানে কামড়ায় সেখানেই লাল ফুসকুড়ি দেখা দেয়। রাতে ঘুমানোর সময় প্রায়ই আমাদের বিরক্ত করে।

এ কারণে মানুষ ভালো করে ঘুমাতে পারে না। ছারপোকা কখনও কখনও সংক্রমণ ছড়াতেও কাজ করে।

ছারপোকা তাড়ানোর ১০ টি সহজ উপায় জেনে নিন।
ছারপোকা তাড়ানোর ১০ টি সহজ উপায় জেনে নিন।

যদি আপনার বাড়িতেও ছারপোকা বেশি থাকে তাহলে অবশ্যই ছারপোকা তাড়ানোর সহজ উপায়গুলো জেনে নেওয়া আপনার জন্য অতি জরুরি।

ছারপোকা তাড়ানোর ঘরোয়া উপায় জানা থাকলে খুব সহজেই এগুলো আপনার বাসা বাড়ি থেকে দূর করতে পারবেন।

ছারপোকার সমস্যায় বেশি ভোগে প্রবাসী ভাই বোনেরা। তাই আপনিও ছারপোকা থেকে মুক্তি পাওয়ার এই উপায়গুলো অনুসরণ করতে পারেন।

সহজে ঘর থেকে ছারপোকা তাড়ানোর ১০ উপায়।

০১. ছারপোকা মারার উপায় কি?: কেরোসিন তেল।

বাড়িতে যেখানে যেখানে ছারপোকা থাকার সম্ভাবনা আছে, সেখানে কয়েক ফোঁটা কেরোসিন পানিতে দিয়ে তা দিয়ে মুছে ফেলা যেতে পারে।

ছারপোকা কেরোসিনের গন্ধ থেকে পালিয়ে যায়।  আপনার বাড়িতে যদি অনেক ছারপোকা থাকে, তাহলে প্রতিদিন কেরোসিন দিয়ে পরিষ্কার করুন।

এটি করলে প্রভাব কয়েক দিনের মধ্যে দৃশ্যমান হবে। যদি প্রতিদিন এটি করতে না চান তবে সপ্তাহে অন্তত দুই থেকে তিন দিন কেরোসিন তেল দিয়ে ঘর পরিষ্কার করুন।

০২. ছারপোকা তাড়ানোর উপায় কি: সূর্যালোক।

আপনি অবশ্যই লক্ষ্য করেছেন যে, ছারপোকাগুলো কেবল অন্ধকারে আসে। এর স্পষ্ট অর্থ হল যে, তারা অন্ধকার এবং আর্দ্রতা পছন্দ করে।

ঘরের বিছানায় এবং সোফায় থাকা ছারপোকা দূর করতে সূর্যালোকের সাহায্য নিন। ম্যাট্রেস সপ্তাহে একবার সূর্যের আলো দেখান।

এতে করে ম্যাট্রেসের ভেতরের আর্দ্রতা শেষ হয়ে যাবে এবং একই সঙ্গে এর মধ্যে লুকিয়ে থাকা ছারপোকাগুলো বেরিয়ে আসবে।

ঘরের ম্যাট্রেস শিট পরিষ্কার করুন এবং অ্যান্টিসেপটিক তরল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এছাড়াও, ঘরের পর্দায় ধুলাবালি বসতে দেবেন না।

এসব করার পরে আপনি কিছু দিন পরে পার্থক্য দেখতে শুরু করবেন। ঘরোয়া প্রতিকারে ছারপোকা মারতে সূর্যালোক ভালো বলা যেতে পারে।

০৩. ছারপোকা তাড়ানোর ঘরোয়া উপায় কি: পুদিনা পাতা মিথস্ক্রিয়া।

ছারপোকা দূর করতে পুদিনা পাতা ঘরোয়া প্রতিকারের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারেন। আপনার বিছানার চারপাশে কিছু পুদিনা পাতা রাখুন।

ছারপোকাগুলো পুদিনার তীব্র গন্ধ পছন্দ করে না। আপনি চাইলে পুদিনা পাতা পিষে স্প্রে তৈরি করতে পারেন।

পুদিনা পাতার স্প্রে বোতলে ভরে তারপর বিছানার চারপাশে স্প্রে করুন। এটি করার মাধ্যমে, ছারপোকাগুলো বের হওয়ার চেষ্টা করবে।

০৪. ছারপোকা তাড়ানোর প্রাকৃতিক উপায়: নিম তেলের ব্যবহার।

ছারপোকা মারতে বিছানার চারপাশে নিম পাতা রাখতে পারেন। নিম পাতার দ্রবণ তৈরি করে স্প্রে করতে পারলে আরো ভালো হয়।

এটি সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার করুন। নিমের তেলও ব্যবহার করা যেতে পারে।

নিম পাতা ব্যবহার করলে ছারপোকার সাথে অন্যান্য পোকামাকড়ও পালিয়ে যাবে।

০৫. তাপের সাহায্যে বিছানার ছারপোকা তাড়ানোর উপায়।

ছারপোকা উচ্চ তাপে পালিয়ে যায়। তাই বিভিন্ন সময়ে বিছানা ধোয়া এবং তারপরে সেগুলিকে বাষ্প করলে ছারপোকা মেরে ফেলবে।

১৪০ ডিগ্রী স্টিমিং ব্যবহার করলে ছারপোকা এবং বিছানার চাদরে লেগে থাকা ছারপোকার ডিমগুলিকে মেরে ফেলবে।

ছারপোকা তাড়ানোর ১০ টি সহজ উপায় জেনে নিন।
ছারপোকা তাড়ানোর ১০ টি সহজ উপায় জেনে নিন।

০৬. ভ্যাকুয়াম ব্যবহার করে রুম থেকে ছারপোকা তাড়ানোর উপায়।

বিছানার পাশাপাশি শিশুর জামাকাপড় ভ্যাকুয়াম করুন। গদি, বিছানা এবং আসবাবপত্র, যেমন: সোফা এবং কুশনগুলিকে পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে ভ্যাকুয়াম করতে পারলে ছারপোকা দূর হবে। 

এছাড়াও কার্পেট, মেঝে এবং দেয়ালের ফাটলে ভ্যাকুয়াম করুন, কারণ এই ধরনের জায়গায়ও বেডবাগ লুকিয়ে থাকতে পারে।

এছাড়াও আপনার ল্যাপটপ এবং বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি পরীক্ষা করুন। ছারপোকা দূর করতে তাদের সনাক্ত করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

০৭. হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করুন।

যদি আপনার বিছানায় বেশি পরিমাণ ছারপোকা থাকে এবং প্রতিকারগুলো গ্রহণ করার জন্য আপনার কাছে বেশি সময় না থাকে তবে চিন্তা করবেন না।

আপনার বাসায় যদি হেয়ার ড্রায়ার থাকে তবে আপনি এটি ব্যবহার করতে পারেন। তাপ খুব বেশি হলে ছারপোকা মারা যায়।

বিছানার চারপাশে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করুন। এটি ছারপোকা তাড়ানোর সবচেয়ে সহজ উপায় এবং তাত্ক্ষণিক ঘরোয়া প্রতিকার। একবার চেষ্টা করে দেখে নিলে ভালো হবে।

০৮. বেকিং সোডা ব্যবহার।

ছারপোকা মারতে বেকিং সোডা ঘরোয়া প্রতিকার হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

আপনাকে অবশ্যই সচেতন থাকতে হবে যে, বেকিং সোডা রেফ্রিজারেটর থেকে আর্দ্রতা শোষণ করতে কাজ করে।

ঘরের যেখানেই ছারপোকা দেখতে পাবেন সেখানে কিছু বেকিং পাউডার ছিটিয়ে দিন।

বিছানায় এবং বিছানার আশেপাশে কোনো ফাটল থাকলে সেখানেও বেকিং পাউডার ছিটিয়ে দিন। 

সপ্তাহে কয়েকদিন এটি করুন।  আপনি কয়েক দিন পরে জানতে পারবেন যে, ছারপোকা চলে গেছে।

০৯. চা গাছের তেলের মিথস্ক্রিয়া।

চা গাছের তেলও ছারপোকা মারতে ঘরোয়া প্রতিকার হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। চা গাছের তেলে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে।

অতএব, চা গাছের তেল ব্যবহার করা যেতে পারে।  এটি ব্যাকটেরিয়ার পাশাপাশি ছত্রাক দূর করতে কাজ করে।

যদিও চা গাছের তেল পাতলা না করে ব্যবহার করলে ভালো হবে, কিন্তু তা মানুষের জন্য ঠিক নয়।

পানিতে মিশিয়ে ব্যবহার করলে ভালো হয়। কিছু জলে প্রায় ২০ ফোঁটা চা গাছের তেল মেশান এবং তারপর স্প্রে করুন।

এমনটা করলে কয়েকদিন পর ছারপোকা দূর হয়ে যাবে। অন্যান্য পোকামাকড়ও চা গাছের তেল থেকে পালিয়ে যায়।

১০. ল্যাভেন্ডারের ব্যবহার (ল্যাভেন্ডারের মিথস্ক্রিয়া)।

ল্যাভেন্ডারের গন্ধের কারণে ছারপোকা অজ্ঞান হয়ে যায় এবং কিছুক্ষণ পরেই মারা যায়। বিছানার ছারপোকা থেকে মুক্তি পেতে আপনি সুগন্ধযুক্ত জল বা তেল ব্যবহার করতে পারেন।

জলের সাথে ল্যাভেন্ডার মেশান এবং তারপর যেখানে ছারপোকা আছে সেখানে কিছু ল্যাভেন্ডার তেল স্প্রে করুন। 

কিছু সময় পর ঘর থেকে সব ছারপোকা নির্মূল হয়ে যাবে।

Post a Comment

Previous Post Next Post

Recent Posts